Main Menu

শার্লি হেবদোতে হামলা: ১৪ জনকে দোষী সাব্যস্ত

Sharing is caring!

দীর্ঘ ৫ বছর বিচারিক কার্যক্রম শেষে শার্লি হেবদোর অফিস এবং ইহুদি মার্কেটে হামলার ঘটনায় অপরাধ চক্রের ১৪ জনকে দোষী সাব্যস্ত করেছেন ফ্রান্সের একটি আদালত। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ অপরাধ ও অর্থনৈতিক সন্ত্রাসবাদসহ বিভিন্ন অভিযোগও রয়েছে এ মামলায়।

বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) আদালতের দেওয়া রায়ে সাজাপ্রাপ্ত ১৪ আসামি কোনো না কোনোভাবে হামলার সঙ্গে সস্পৃক্ত ছিলেন।

ইসলাম বিদ্বেষী বিভিন্ন কার্টুন প্রকাশের জের ধরে ২০১৫ সালে ফরাসি সাময়িকী শার্লি হেবদোর অফিসে ঢুকে দুই বন্দুকধারীর চালানো এলোপাতাড়ি গুলিতে বেশ কয়েকজন সাংবাদিক ও কার্টুনিস্ট নিহত হন। এ সময় নিকটবর্তী ইহুদি বাজারে এক বন্দুকধারী গুলি চালানোর চেষ্টা করলে এক পুলিশ অফিসার নিহত হন।

হামলাকারী তিন বন্দুকধারী শেষ পর্যন্ত নিহত হন ফরাসি পুলিশের গুলিতে। এ ঘটনায় সারাবিশ্বে শুরু হয় আলোচনা সমালোচনা। এরপর তদন্ত শুরু করে ফরাসি পুলিশ। গ্রেফতার করে সন্দেহভাজন একাধিক ব্যক্তিকে।

দীর্ঘ সময় বিচারিক কার্যক্রম শেষে বুধবার এই মামলার রায় দেন ফরাসি আদালত। যেখানে ১১ জন আসামি উপস্থিত ছিলেন। বাকি ৩ জন পলাতক ছিলেন। যাদের অনুপস্থিতিতেই রায় দেন আদালত। আদালতে পুলিশ অভিযোগ করে জানিয়েছে, পলাতক তিন আসামি সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটে যোগ দিয়েছেন। যাদের মধ্যে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সম্প্রতি শ্রেণিকক্ষে হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে বিদ্রুপ করে কার্টুন প্রদর্শন করে ফরাসি এক শিক্ষক। মহানবীকে ব্যঙ্গ করায় ওই শিক্ষককে গলা কেটে হত্যা করে স্থানীয় এক যুবক। এ ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করে ফরাসিরা। শুরু হয় বিশ্বজুড়ে প্রতিবাদ-পাল্টা প্রতিবাদ। এ ঘটনায় মূলত ২০১৫ সালের হামলার ঘটনাকে সামনে নিয়ে আসে। যে রায়ে ১৪ জনকে দোষী সাব্যস্ত করলেন আদালত।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*