Main Menu

রাজপথের সহযোদ্ধাদের উদ্যোগে স্পিকার কাউন্সিলর আহবাবকে সংবর্ধনা

Sharing is caring!

সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কাউন্সিলর মোহাম্মদ আহবাব হোসেন দ্বিতীয়বারের মত লন্ডন বারা অব টাওয়ার হ্যামলটেস কাউন্সিলর স্পিকার নির্বাচিত হওয়ায় রাজপথের সহযোদ্ধাদের গ্রুপের পক্ষ থেকে ভার্চুয়াল সর্ম্বধনা প্রদান করা হয়েছে।

১ জুন মঙ্গলবার ইউকে সময় বিকাল ৪ টায় সর্ম্বধনা সভায় সভাপতিত্ব করেন গোলাপগঞ্জ উপজেলা সোশ্যাল ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুল বাছিত। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন হিথরো আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ শামীম আহমদ, ওয়েস্টমিনস্টার বাংলাদেশী ওয়লেফেয়ার ট্রাস্ট ও মেট্রোপলিটন পুলিশের সাবেক ইনডিপেনডেন্ট এডভাইজার শাইস্তা মিয়া, আমেরিকা মিশিগান আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি খালেদ আহমেদ, কানাডা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম জুবেরি এবং ২৬শে টিভির সিইও যুবনেতা জামাল খান।

ভার্চুয়াল সর্ম্বধনা সভায় যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে কাউন্সিলর আহবাব হোসেনের বন্ধুমহল, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও কমিউনিটির বিশিষ্টজনরা উপস্থতি ছিলেন।

সভায় কাউন্সিলর আহবাব হোসেনের বন্ধুরা বলেন, আহবাব হোসেন আমাদের বন্ধু, সহকর্মী- বিষয়টা যখন ভাবি, তখন সত্যিই র্গববোধ করি। তার সফলতা আমাদেরই সফলতা।

বক্তারা বলেন, আহবাব হোসেন নিষ্ঠা, একাগ্রতা, বিচক্ষণতা ও সাংগঠনিক দক্ষতার মাধ্যমইে এ পর্যায়ে এসেছেন। আমাদের প্রত্যাশা তিনি আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবেন।

সভায় বাংলাদেশ থেকে সংযুক্ত ছিলেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আহমদ হোসেন, সাবেক সাংসদ ও সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন, সিলেটে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজস্টার বদরুল ইসলাম সুয়েব, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য কানাই দত্ত, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নিহার রঞ্জন দাস, কবির মিয়া এবং সাবেক ছাত্র নেতা শাহ সানি।

আমেরিকা থেকে সংযুক্ত ছিলেন নিউর্ইয়ক স্টেট আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহসভাপতি সৈয়দ আতিকুর রহমান, নিউর্ইয়ক স্টেট আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিন আজমল, বিশস্ট ব্যবসায়ী আশরাফ উদ্দিন কালাম।

কানাডা থেকে সংযুক্ত ছিলেনে সাবেক ছাত্রনেতা বিকাশ পান্না দাস।

যুক্তরাজ্য থেকে সংযুক্ত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরিফ, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, বাংলাদেশ হাইকমিশন লন্ডন এর ডেপুটি হাইকমিশনার জুলকার নাইন, বিশিষ্ট শিল্পপতি ইকবাল আহমেদ ওবিই, বাংলাদেশ ক্যাটারাস এসোসয়িশেনের প্রেসিডেন্ট এম এ মুনিম এবং সাধারণ সম্পাদক মিটু চৌধুরী, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমদাদুল হক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুবায়ের, বিসিসিআই ইউকের প্রেসিডেন্ট নাজমুল হক নুরু, ব্রিটিশ বাংলাদেশ চেম্বার অব কর্মাস এর সাবেক প্রেসিডেন্ট শাহগির বখত ফারুক, ক্রয়ডন কাউন্সিলের সাবেক মেয়র হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ ক্যাটারাস এসোসয়িশনের সাবেক প্রেসিডেন্ট কামাল ইয়াকুব, সাবেক ছাত্রনেতা এডভোকেট শাহ ফারুক আহমেদ, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, যুক্তরাজ্য বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো আলিমুজ্জামান, এমসি কলেজের সাবেক ভিপি সৈয়দ মুজিব, সাবেক ছাত্রনেতা শিরিন চৌধুরী, সাবেক ছাত্রনেতা মােহাম্মদ আবু সরওয়ার (কিরণ), সাবেক ছাত্রনেতা সৈয়দ হাসান, সাবেক ছাত্রনেতা ফারুক আলী, বেথেনালগ্রীনের হামিদা ইদ্রিস, কাউন্সিলর ফয়জুর রহমান, কামরুন নাহার শাহজাহান, সাবেক ছাত্রনেতা আবজল হোসেন প্রমুখ।

সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থতি ছিলেন সৈয়দ আনাস পাশা, আনোয়ার শাহজাহান, মকিস মনসুর, জাকির হোসেন কয়েছ।

সমাপনী বক্তব্যে স্পিকার আহবাব হোসেন তাঁকে এভাবে সংর্বধিত করে সম্মানিত করার জন্য বন্ধু ও সহকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*