Main Menu

বৃটেনে লকডাউন পরবর্তী পরিকল্পনা প্রকাশ: রাত ১০ টার পর কারফিউ থাকছে না

Sharing is caring!

বৃটেনে ৪ সপ্তাহের ন্যাশনাল লকডাউন শেষ হচ্ছে আগামী ২রা ডিসেম্বর বুধবার। সপ্তাহের লকডাউন শেষে হওয়ার আগেই পরবর্তী পরিকল্পনা প্রকাশ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ক্রিসমাসকে সামনে রেখে লকডাউন উঠানোর পাশাপাশি রাত ১০ টার পর কারফিউ উঠে যাবে বলে ঘোষণা দেন। সোমবারের ঘোষনায় লকডাউনের আগের চেয়ে কঠোর হবে বলে আবাস দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমরা বুদ্ধিমান সাবধানতা ছাড়াই আমরা শীতকালীন এবং নতুন বছরের উত্থানে ভাইরাস বাড়ার ঝুঁকি নেব। এই রোগের প্রকোপ বিভিন্ন অঞ্চলে এখনও রয়েছে। তাই বৈজ্ঞানিক পরামর্শে আমি ভীত।

২রা ডিসেম্বর লকডাউন শেষ হলে বরিস জনসন বৃটেনে তিন স্তরের সিস্টেমে ফিরে আসার বিস্তারিত ব্যাখ্যা করেন। তিনি বলেন, সমস্ত অঞ্চলে ক্রিসমাসের ব্যাবসায়ে সুযোগ দিতে জিম অবসর কেন্দ্রগুলোলিও এবং অপ্রয়োজনীয় দোকানগুলি, হেয়ারড্রেসার, সেলুন, পাব ও রেস্তেুাঁরাগুলো আবার খোলার অনুমতি দেয়া হবে। পাশাপাশি উপাসনা এবং বিবাহ পুনরায় শুরু হতে পারে। তবে রাত ১০ টার বিতর্কিত কাফিউও সরিয়ে ফেলা হবে।

প্রধানমন্ত্রী ২রা ডিসেম্বর থেকে ইংল্যান্ডে কোভিড-১৯ বিধিনিষেধের পরিকল্পনা উন্মোচন করার আগে প্রায় সাড়ে ৩ টায় হাউস অফ কমন্সে একটি বিবৃতি দেন। সাংসদরা এই প্রস্তাবগুলির পরে এই সপ্তাহের শেষে ভোট দেবেন। লকডাউনের পরে অঞ্চল ঝুঁকিপূর্ণ বা খুব বেশি ঝুঁকিপূর্ণ তা নির্ণয় করা হবে।

এদিকে, বৃটেনে সোমবার (২৩শে নভেম্বর) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫,৪৫০ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ২০৬ জন।

প্রসঙ্গত, বৃটেনে গত সেপ্টম্বরে রাত ১০ টার পর কারফিউ জারি করে সরকার। এরপর ৫ই নভেম্বর ন্যাশনাল লকডাউন ঘোষণার পর থেকে অপরিহার্য দোকান ও উপসনালয় বন্ধ রয়েছে। লকডাউনের রাত থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বেশ কয়েক বার লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে। বিক্ষোভ চলাকালীন সময়ে পুলিশ প্রায় দেড় শতাধিক মানুষকে আটক করে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*