Main Menu

বিশিষ্ট লেখক সৈয়দ মবনুর মায়ের ইন্তেকাল : দাফন সম্পন্ন

বিশিষ্ট লেখক ও কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের (কেমুসাস) সহ-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মবনুর মা এবং খেলাফত মজলিস নেতা মরহুম আলহাজ¦ সৈয়দ আতাউর রহমানের সহধর্মিণী কবি ফৌজিয়া কামাল ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মঙ্গলবার রাত দুইটায় নগরীর শাহী ঈদগাহ এলাকার সৈয়দপুর হাউসের নিজ বাসায় তিনি ইন্তেকাল করেন। গতকাল বুধবার (৮ জুন) বাদ জোহর সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর ফাজিল মাদরাসা মাঠে তাঁর জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। জানাজায় ইমামতি করেন তাঁর বড় ছেলে সৈয়দ মবনু।

জানাজায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট ল কলেজের অধ্যক্ষ এডভোকেট মহসিন আহমদ, সৈয়দপুর দারুল হাদিস মাদরাসার সাবেক মুহাদ্দিস মুফতি নোমান আহমদ, শায়খুল হাদিস মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, সৈয়দপুর ফাজিল মাদাসার অধ্যক্ষ ড. সৈয়দ রেজওয়ান আহমদ, জামিআ সিদ্দিকিয়ার পরিচালক মুফতি মনসুর আহমদ প্রমুখ।

কবি ফৌজিয়া কামাল সিলেটি নাগরি ভাষার মহাকবি পীর মজির উদ্দিনের ছেলে মরমী কবি পীর মনফর উদ্দিনের বড় মেয়ে, বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ কবি ফরীদ আহমদ রেজার বড়বোন ও খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল কাদির সালেহের শাশুড়ি। ফৌজিয়া কামাল কৈশোরেই আমীনূর রশীদ চৌধূরী সম্পাদিত তৎকালীন যুগভেরী পত্রিকা ও মুহাম্মদ নুরুল হক সম্পাদিত আল ইসলাহ ম্যাগাজিনে কবিতা লিখতেন। ১৯৬৮ খ্রিস্টাব্দে আলহাজ্ব সৈয়দ আতাউর রহমানের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। তিনি চার ছেলে, চার মেয়ে, নাতি-নাতনি ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর বড়ছেলে কবি ও গবেষক সৈয়দ মবনু, দ্বিতীয় ছেলে ব্রিটেনের সাপ্তাহিক বাংলামেইল পত্রিকার সম্পাদক সৈয়দ নাসির আহমদ, তৃতীয় ছেলে সৈয়দ ফখর উদ্দিন ও ছোট ছেলে সৈয়দ সফির আহমদ।

এদিকে কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের (কেমুসাস) সহ-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মবনুর মা কবি ফৌজিয়া কামালের মৃত্যুতে সংসদের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মুজিবুর রহমান চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল হামিদ মানিক। এক শোকবার্তায় তারা মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।