Main Menu

বার্মিংহাম বিমানবন্দরে বারো হাজার মৃতদেহ ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন অস্থায়ী মর্গ তৈরি করা হচ্ছে

Sharing is caring!

বার্মিংহাম বিমানবন্দরে অস্থায়ী মর্গ স্থাপনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে যাতে ওখানে ১২,০০০ জনের মৃতদেহ রাখা যায় এর জন্য স্থান তৈরি করা হবে।
বিমানবন্দরের পাশেই বার্মিংহামের জাতীয় প্রদর্শনী কেন্দ্রের (এনইসি) যা ইতিমধ্যে একটি অস্থায়ী হাসপাতালের জন্য সম্ভাব্য স্থান হিসাবে বিবেচনা করা হয়েছে।
এটি বোঝা যায় যে কোনও বিমানবন্দরে সাধারণত প্রয়োজনমতো ২,৫০০ মৃতদেহের জন্য স্থান থাকতে পারে, তাই চিন্তা করা হচ্ছে প্রয়োজনে ওখানে ১২,০০০ অবধি বাড়তে পারে।
ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস করোনাভাইরাসের জন্য হটস্পট হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেছে।
সাম্প্রতিক কোভিড -১৯ আক্রান্ত ব্যক্তিদের মৃত্যুর রেকর্ডিংয়ের সর্বশেষ গতকাল অফিসিয়াল যে তথ্য প্রকাশিত হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে মারা যাওয়া ১১৫ জন ব্যক্তির মধ্যে ৪০ জন প্রায় ৩৪% এই অঞ্চলের বাসিন্দা।
অস্থায়ী মর্গের জন্য সম্ভাব্য সাইটগুলি সন্ধান করার জন্য ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস এবং ওয়ারউইকশায়ার স্থানীয় কর্তৃপক্ষের পক্ষে স্যান্ডওয়েল মেট্রোপলিটন বরো কাউন্সিল স্কোপিংয়ের সমন্বয়কারীর ভুমিকা পালন করছে।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ বলেছে যে এ ব্যাপারে তাদের সাথে কাউন্সিলের আলোচনা হয়েছে এবং ‘একটি উপযুক্ত জায়গার সন্ধানে আমরা সহযোগিতা করব’।
স্যান্ডওয়েল কাউন্সিলের উপ-নেতা ওয়াসিম আলী বলেছেন: ‘বাস্তবে স্থানীয় কাউন্সিল হিসাবে আমাদের সবচেয়ে খারাপের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে। আমরা দেখেছি মৃত্যুর সংখ্যা কেবল বাড়তেই আছে। এটি যদি সেই জায়গায় গিয়ে পৌঁছায় তবে আমাদের আগে থেকেই প্রস্তুত থাকতে হবে। এটি একটি বড় লজিস্টিক অপারেশন, সুতরাং পরিকল্পনা শুরু করার জন্য আমাদের এখনই সিদ্ধান্ত নিতে হবে।
তিনি এ কথাও বলেন : ‘আমরা সত্যিই এটি ব্যবহার করতে চাই না, তবে দরকার হলে যেন প্রস্তুত পাই।
মিঃ আলী বলেছেন, একটি পরিকল্পনা করা দরকার কারণ স্থানীয় মর্গগুলি স্থান সংকুলানের বাইরে চলে যেতে পারে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*