Main Menu

প্যাকেটজাত খাবার থেকে করোনা ছড়ানোর ঝুঁকি

Sharing is caring!

প্যাকেটজাত হিমায়িত খাবার থেকে ছড়াতে পারে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। চীনের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন বা সিডিসির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন সরকারিভাবে এই প্রথম প্যাকেটজাত খাবারের ওপর বক্তব্য রাখল চীন।

সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হন চীনের শেংডং প্রদেশের কুইংডাও শহরে দুই বন্দর কর্মী। যদিও করোনার কোনও লক্ষণ ছিল না তাদের। তারা আমদানি করা হিমায়িত মাছ, মাংস জাহাজ থেকে নামানোর কাজ করেন। পরীক্ষা করে দেখা গেছে যে ওই প্যাকেটজাত হিমায়িত খাবারে ছিল করোনার জীবাণু। এরপরই চীনের সিডিসির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হলো।

শনিবার থেকে ১৯টি দেশের ৫৬টি কোম্পানি থেকে প্যাকেটজাত খাবারের আমদানি বন্ধ করে দিল চীন।

বেজিংয়ের দাবি, গত সপ্তাহে কুইংডাও শহরে নতুন করে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়েছে। তবে যে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে, সেখানে সব প্যাকেটে ভাইরাসের চিহ্ন মেলেনি। তাই এই ঝুঁকি কম বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে চীনের বন্দর শহর ডালিয়ান থেকে আমদানিকৃত সামুদ্রিক খাবারের প্যাকেজিংয়ে করোনভাইরাস খুঁজে পাওয়া গিয়েছে।

এর আগে গত জুলাই মাসে চিনের উত্তর-পূর্ব প্রদেশের লিয়াওনিংয়ের বন্দরে ডালিয়ানের শুল্ক দফতরের আধিকারিকরা আমদানিকৃত হিমায়িত চিংড়ির প্যাকেজিংয়ে করোনাভাইরাস খুঁজে পাওয়া গিয়েছিল। সেই সময় চীন বাইরে থেকে চিংড়ির আমদানি সাময়িক স্থগিত রেখেছিল।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*