Main Menu

পুলিশি বেষ্টনে আরিফের বাসা, গাড়িতে তল্লাশি

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর বাসার সমনে অবস্থান নেয় বিপুল সংখ্যক পুলিশ। দুপুরে সংবাদ সম্মেলন শেষে আরিফের বাসা থেকে স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতারা বেরিয়ে আসলে তাদের গাড়ি তল্লাশি করে পুলিশ।

আরিফের অভিযোগ, নির্বাচনে ভীতি সৃষ্টির জন্য ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে পুলিশ এই তল্লাশি চালাচ্ছে। তবে পুলিশের দাবি, কাউকে হয়রানি বা ভীতি সৃষ্টি নয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তল্লাশী চালানো হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) দুপুরে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর বাসায় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। এ সংবাদ সম্মেলনে সিসিক নির্বাচনের বিএনপির বিদ্রোহী মেয়রপ্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম আরিফুল হক চৌধুরীকে সমর্থন দিয়ে সিসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান।

সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় ও সিলেট বিএনপির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনের আগেই নগরীর কুমাড়পাড়ায় আরিফুল হকের বাসার সামনে অবস্থায় নেয় পুলিশ সংখ্যক পুলিশ। সংবাদ সম্মেলনের পর নেতাকর্মীরা বেরিয়ে যাওয়ার সময় তাদের গাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। এসময় বিএনপি নেতাদের মধ্যে গ্রেপ্তার আতঙ্কও দেখা দেয়।

তল্লাশীর খবর পেয়ে আরিফুল হক বাসা থেকে বেরিয়ে এসে এর প্রতিবাদ করেন। এসময় অনেকে তল্লাশীল প্রতিবাদে স্লোগান দিতেও দেখা যায়।

এদিকে সকাল থেকেই বদরুজ্জামান সেলিমের বাসার সামনেও বিপুল সংখ্যক পুলিশ অবস্থান নিয়েছিলো বলে অভিযোগ বিএনপির।

এ বিষয়ে আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, প্রশাসন নানাভাবে আমাদেরকে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হয়রানি করছেন। নির্বাচনের আগে এরকম পরিস্থিতি মেনে নেয়া যায়না। আমরা এমন পরিস্থিতিতে খুবই উদ্বিগ্ন। আমরা এখন নির্বাচন কমিশনে এ নিয়ে অভিযোগ জানাতে যাচ্ছি।

এদিকে সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশাররফ হোসেন বলেন, আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতেই এ তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করেছি।