Main Menu

দুই শর্তে খুলতে পারবে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

Sharing is caring!

করোনাভাইরাসের কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। চলতি বছরের গত ১২ সেপ্টেম্বর স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হয়েছে। দেশের সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোও খুলে দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে সরকার। এখন শর্তসাপেক্ষে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খোলার সিদ্ধান্ত দিয়েছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ইউজিসি ও উপাচার্যদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির এক বৈঠকে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ও আবাসিক হল খুলে দেওয়া যাবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় খোলার প্রক্রিয়া হিসেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ২৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে শিক্ষার্থীদের টিকার জন্য নিবন্ধন করতে বলেছে। এ জন্য শিক্ষার্থীদের বয়স এবং জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদের শর্তও শিথিল করে বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এরপর গতকাল (২৩ সেপ্টেম্বর) ইউজিসির পরিচালক মো. ওমর ফারুখ স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় ইউজিসি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারদের কাছে এক নির্দেশনা পাঠায়। ইউজিসি তাদের নির্দেশনায় জানায়, টিকা সংক্রান্ত শর্ত মেনে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ক্যাম্পাস খুলতে নিজেরা সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।

নির্দেশনায় বলা হয়, সরাসরি শিক্ষা কার্যক্রমে যাওয়ার আগে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কমপক্ষে এক ডোজ টিকা গ্রহণ অথবা টিকার জন্য নিবন্ধন করতে হবে।

নির্দেশনায় আরও জানানো হয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো একাডেমিক কাউন্সিল ও সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত নিয়ে নিজেদের ব্যবস্থাপনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে ক্লাস, পরীক্ষাসহ অন্যান্য শিক্ষা কাযক্রম চালু রাখতে পারবে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*