Main Menu

দুই উড়োজাহাজের সংঘর্ষের ঘটনায় প্রধান প্রকৌশলীসহ বরখাস্ত ৫

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এয়ারলাইন্স বিমানের নিজস্ব হ্যাঙ্গারে দুটি বোয়িং উড়োজাহাজের সংঘর্ষে ক্ষতির ঘটনায় সংস্থাটির প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ বদরুল ইসলামসহ ৫ জনকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
অন্য কর্মকর্তারা হলেন বিমানের প্রকৌশলী মো. মাইনুল ইসলাম, সৈয়দ বাহাউল ইসলাম, সেলিম হোসেন খান এবং জিএসই অপারেটর মো. হাফিজুর রহমান।

বুধবার বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও ড. আবু সালেহ মোস্তফা এই তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, চলতি বছরের ১০ এপ্রিল বিমানবন্দরের হ্যাঙ্গারে আগে থেকেই বিমানের একটি বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজ রক্ষণাবেক্ষণের জন্য রাখা ছিলো।এরপর আরেকটি বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজ রক্ষণাবেক্ষণের জন্য হ্যাঙ্গারের দিকে নেওয়া হয়। হ্যাঙ্গারের ভেতরে প্রবেশ করানোর সময় ৭৩৭ উড়োজাহাজের সামনের অংশের সঙ্গে ভেতরে থাকা ৭৭৭ উড়োজাহাজের পেছনে অংশের সংঘর্ষ বাঁধে। এতে দুই উড়োজাহাজই ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

এ ঘটনায় বিমানের প্রধান প্রকৌশলী (কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স) আলী নাসেরকে প্রধান করে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি এবং বিমানের চিফ অব সেফটির নেতৃত্বে আরেকটি কমিটি গঠন করা হয়। এ ছাড়া বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়।

আজ বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ওই পাঁচ জনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনে বাংলাদেশ বিমান করপোরেশন এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন (১৯৭৯) প্রবিধানমালার ৫৫ ধারা লঙ্ঘনের জন্য তাদের দায়ী করা হয়েছে। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।