Main Menu

ঢাকা কলেজ ছাত্রাবাস ছাড়ার নির্দেশ প্রত্যাখ্যান

রাজধানীর নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে ঢাকা কলেজের সব ছাত্রাবাস। তবে কলেজ কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা জানান, যেকোনো মূল্যে ছাত্রাবাস-ক্যাম্পাসে তারা অবস্থান করবেন। প্রয়োজনে রাজপথে থেকে কঠোর আন্দোলন চালিয়ে যাবেন।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে ঢাকা কলেজের শহিদ আ ন ম নজিব উদ্দিন খান অডিটোরিয়ামে সম্মিলিতভাবে ছাত্রনেতারা ছাত্রবাস বন্ধের সিদ্ধান্তকে প্রত্যাখ্যানের কথা জানান।

এ সময় ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফুয়াদ হাসান বলেন, সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। এ ঘটনার বিচার না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাবো। প্রয়োজনে আমরা লাশ হয়ে বের হব, তবু হল-ক্যাম্পাস ছাড়ব না।

তিনি আরও বলেন, আমরা অধ্যক্ষকে বলেছি এ ঘটনাটি সুন্দরভাবে সমাধান করতে। তিনি যদি তা না পারেন, তবে তার পদত্যাগ দাবি করছি।

এর আগে, প্রথম দফায় গতকাল সোমবার রাত ১২টার দিকে রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের ‘কথা-কাটাকাটি’র জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। আড়াই ঘণ্টা পর সংঘর্ষ থামলেও দ্বিতীয় দফায় আজ মঙ্গলবার সকাল ১০ টার কিছুসময় পরে ফের সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা।

এ অবস্থায় আগামী ৫ মে থেকে ঢাকা কলেজের আবাসিক হলগুলো বন্ধের ঘোষণা দেন ঢাকা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক এ টি এম মইনুল হোসেন। বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় বিকেলের মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়তে বলা হয়েছে এক নোটিশে।