Main Menu

কেমুসাস’র নতুন সভাপতি মুহিত

Sharing is caring!

সিলেটের প্রাচীনতম কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে ড. মুহিতকে
সিলেটের সাহিত্যাঙ্গনের অভিভাবক এ সংগঠনের বয়সও ড. আবুল মাল আবদুল মুহিতের সমবয়সী। বরং কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ ড. মুহিতের জন্মের দুই বছর পর প্রতিষ্ঠা করা হয়। ১৯৩৬ সালে সিলেটের এই প্রাচীন প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠা করেন প্রখ্যাত সাহিত্য গবেষক মোহাম্মদ নুরুল হক। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ধীরে ধীরে এই প্রতিষ্ঠানটি সিলেটের সাহিত্য অঙ্গনের মানুষের প্রিয় প্রাঙ্গণ হিসেবে পরিচিতি লাভ করে। সিলেটের কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ- কেমুসাস’র সভাপতির দায়িত্ব পালন করে গেছেন দেশের প্রখ্যাত সাহিত্যজনেরা। সিলেটের এই প্রতিষ্ঠানকে তারা নিজেও আগলে রেখেছিলেন। সাহিত্যিক সৈয়দ মুজতবা আলী, দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ, দিলওয়ার খান কবির দিলওয়ার এবং চৌধুরী গোলাম আকবর (লোকসাহিত্য গবেষক) সহ আলোকিতজনেরা কেমুসাস’র সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এবার সেই কেমুসাস’র সভাপতির দায়িত্ব পেলেন সিলেটের বিজ্ঞজন, প্রবীণ ব্যক্তি ড. আবুল মাল আবদুল মুহিত।

তার সঙ্গে সিলেটের সাহিত্য অঙ্গনের আলোকিত ব্যক্তিদের রাখা হয়েছে কমিটিতে। সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সাহিত্যিক আবদুল হামিদ মানিককে। কেমুসাসের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক দেওয়ান এএইচ মাহমুদ রাজা চৌধুরী মানবজমিনকে জানিয়েছেন- কেমুসাস’র এবারের নির্বাচনে একটি মাত্র প্যানেল জমা পড়েছে। কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের নির্বাচন কমিশনের আহ্বায়ক, সিলেট জেলা বারের পিপি এডভোকেট নিজাম উদ্দিন গত ৩রা ডিসেম্বর এক প্যানেল জমা হওয়ায় সবাইকে বিজয়ী ঘোষণা করেন। ফলে কেমুসাস’র আগামী কমিটির সভাপতি হয়েছেন সাবেক মন্ত্রী ড. আবুল মাল আবদুল মুহিত। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের শেষদিকে নতুন কমিটির হাতে দায়িত্ব হস্তান্তর করা হবে বলে জানান তিনি। এদিকে- কেমুসাস’র নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- সহ-সভাপতি মুজিবুর রহমান চৌধুরী এডভোকেট, অধ্যাপক নন্দনাল শর্মা, মো. আবুল কালাম খান (কালাম আজাদ), সৈয়দ মুহাদ্দিস আহমদ, অধ্যাপক দেওয়ান এএইচ মাহমুদ রাজা চৌধুরী, সহ-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুমিন আহমদ মবনু, কোষাধ্যক্ষ আব্দুস সাদেক লিপন এডভোকেট, আল-ইসলাহ্‌ সম্পাদক সেলিম আউয়াল, সাহিত্য ও গবেষণা সম্পাদক আহমদ মাহবুব ফেরদৌস, লাইব্রেরি সম্পাদক নাজমুল হক নাজু, সহ লাইব্রেরি সম্পাদক (মহিলা) ইসমত হানিফা। সদস্য হয়েছেন- মো. হারুনুজ্জামান চৌধুরী, আহমেদ নূর, আফতাব চৌধুরী, ডা. আব্দুল হাই মিনার, মোস্তাক আহমাদ দীন, জগলু চৌধুরী, ড. মো. নজরুল হক চৌধুরী, আব্দুল মুকিত অপি এডভোকেট, সৈয়দ মোহাম্মদ তাহের, বেলাল আহমদ চৌধুরী, রিপন আহমদ ফরিদী ও মাহবুব হোসেন। ড. আবুল মাল আবদুল মুহিত কেমুসাস’র সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিনন্দন বার্তায় অভিষিক্ত হচ্ছেন তিনি। বিভিন্ন মহল থেকেই তাকে শুভেচ্ছা জানানো হচ্ছে। ড. মুহিতের নেতৃত্বে কেমুসাস আরো সমৃদ্ধ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সিলেটের বিজ্ঞজনেরাও।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*