Main Menu

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সিসিকের সভায় যে ৫ সিদ্ধান্ত

Sharing is caring!

বর্তমান করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে করোনার সংক্রমণ রোধ ও সিলেটের চিকিৎসাসেবার উন্নয়ন শীর্ষক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরীর সঞ্চালনায় সভায় ভার্চিুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমিন এমপি।

সভায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের উর্ধ্বগতি ও সিলেটের চিকিৎসা সেবার বর্তমান অবস্থা নিয়ে সংশ্লিষ্টদের মতামত নেয়া হয়। বর্তমানে সিলেটের সবকটি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে বেড, অক্সিজেন সংকটের বিষয়টি গুরুত্বের সাথে তুলে ধরে আলোচকরা। এছাড়া সভায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমন থেকে মুক্ত রাখতে গণটিকা দানে সচেতনতামুলক কার্যক্রম হাতের নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভায় ভার্চিুয়ালি সংযুক্ত থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমিন এমপি সিলেটের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন।

সভা শেষ সিলেট সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের সিদ্ধান্তসমূহ জানান।

জরুরিসভায় গৃহীত ৫ সিদ্ধান্ত হচ্ছে- উৎসমুখে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বন্ধে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মাস্ক ও টিকাদানে উদ্বোদ্ধকরণের জন্য প্রচার প্রচারণা অব্যাহত রাখা, সিলেট বিভাগের উপজেলা সমূহের স্বাস্থ্যসেবার মান আরো উন্নীতকরা যাতে উপজেলা পর্যায়ে রোগীরা সর্বোচ্চ পর্যায়ে চিকিৎসা সেবা পেতে পারেন, সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অক্সিজেন সঞ্চালন ও প্লান্ট স্থাপন করা, অক্সিজেন কোম্পানিগুলোর সাথে আলোচনা করে সিলেট অঞ্চলে অক্সিজন সাপ্লাই আরো বাড়ানোর ব্যবস্থা করা ও গৃহীত সিদ্ধান্ত সমূহ প্রতিবেদন আকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী, পরিকল্পনামন্ত্রী, প্রবাসী কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রীর বরাবরে প্রেরণ করা হবে।

সভায় বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য বিভাগ সিলেটের পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়, অতিরিক্ত সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ জাকারিয়া, সিলেট জেলা সিভির সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মন্ডল, সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ব্রায়ান বঙ্কিম, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন, জেলার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান ও সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ প্রমুখ। সিলেট জেলা জাসদ নেতা মহিউদ্দিন আহমদ ও গিয়াস আহমদ।

উপস্থিত ছিলেন এটিএম ফয়েজ, এটিএম সুয়েব, মাহিউদ্দিন আহমদ সেলিম, মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, আব্দুল করিম, রজতকান্তি গুপ্ত, অধ্যাপক ডা. মো. তারেক আজাদ, ডা. আশরাফ আহমেদ, ডা. জ্যোতি কুমার চৌধুরী, মো. এমদাদ হোসেন চৌধুরী, মো. নাহিদ আলম, সিসিক কাউন্সিলর মো. আজাদুর রহমান আজাদ, কাউন্সিলর রেজাউল হাসান লোদী, কাউন্সিলর রাশেদ আহমেদ, কাউন্সিলর আব্দুল মুহিত জাবেদ, কাউন্সিলর মো. ইলিয়াসুর রহমান, কাউন্সিলর মোহাম্মদ তৌফিক বকস, কাউন্সিলর মো. সিকান্দর আলী, কাউন্সিলর মো. মোখলিসুর রহমান কামরান, কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীম, কাউন্সিলর আব্দুর রকিব তুহিন, কাউন্সিলর এবিএম জিল্লুর রহমান উজ্জ্বল, কাউন্সিলর এস শওকত আমিন তৌহিদ, কাউন্সিলর মো. তারেক উদ্দিন তাজ, সংরক্ষিত কাউন্সিলর মাসুদা সুলতানা, কাউন্সিলর নাজনীন আক্তার কনা, কাউন্সিলর শাহনাজ বেগম শানু , কাউন্সিলর কুলসুমা বেগম পপি, সিসিক’র এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সুনন্দা রায়, সিনিয়র সাংবাদিক ইকরামুল কবির, সাংবাদিক ইকবাল মাহমুদ, সাংবাদিক আনিস রহমান, আশকার আমীন রাব্বি, দিগেন সিংহ, ওয়াহিদুর রহমান ওয়াহিদ, সাংবাদিক ফয়সাল আমিন, সাংবাদিক ফয়সাল আহমেদ বাবলু, সাংবাদিক সাঈদ নোমান ও সাংবাদিক ফখরুল ইসলাম।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*