Main Menu

আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুর আগে সহিংসতার পৃষ্ঠপোষক গ্রেফতার

Sharing is caring!

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীউদযাপনকালীন সময়ে সহিংসতা, ভাংচুর ও নাশকতার মাধ্যমে রাষ্ট্রবিরোধী চক্রান্তের অভিযোগে আসাদুল্লাহ ওরফে আসাদ (৩০) নামে এক হেফাজত নেতাকে হাটহাজারী থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব -৭।

বুধবার সকালে পৌরসভার ফটিকা গ্রামের শাহাজালাল পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসাদ আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুর আগে সহিংসতার পৃষ্ঠপোষক ছিল বলেও জানা গেছে।

তিনি হেফাজতের হাটহাজারী উপজেলা কমিটির সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং পৌরসভা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক।

র‌্যাবের দাবি, আসাদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানায় ১টি বিশেষ ক্ষমতা আইনের এবং ২টি অন্যান্য ধারায় মামলা চলমান রয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) রাকিবুল হাসান সংবাদিকদের জানান, গত ২৬ ও ২৭ মার্চ মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ উদযাপন চলাকালীন সময়ে একটি কুচক্রী মহল দেশের বিভিন্ন স্থানে বিশেষ করে হাটহাজারী এলাকায় যে অরাজকতা, সহিংসতা, নাশকতা ও ধ্বংসলীলার তাণ্ডব চালায়; সে তাণ্ডবের সঙ্গে জড়িতদের আটকের জন্য র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ব্যাপক গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রাখে।

তিনি আরও বলেন, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার সকালে র‌্যাব -৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল হাটহাজারী থানাধীন ফটিকা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনকালীন সময়ে হাটহাজারী এলাকার সহিংসতা, ভাংচুর ও নাশকতার মাধ্যমে রাষ্ট্রবিরোধী চক্রান্তের অভিযোগে আসাদুল্লাহ ওরফে আসাদকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতাকৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদে আরো স্বীকার করে যে, সে মরহুম আল্লামা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যুর পরে সংঘটিত সহিংসতা ও নাশকতা সৃষ্টির পৃষ্ঠপোষক ছিল।

গ্রেফতারকৃত আসামি সংক্রান্ত পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*