Main Menu

‘আগামী মাসেই আরো একশো মডেল মসজিদ উদ্বোধন হবে’

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ফারুক আহম্মেদ বলেছেন, আর্থসামাজিক উন্নয়নে ইমামদেরকে ব্যাপকভাবে প্রশিক্ষণের আওতায় আনতে হবে।

তিনি বলেন, দেশের ৫ লাখ মসজিদে ৮ লাখ ইমাম-মুয়াজ্জিন রয়েছেন। প্রতি শুক্রবার জুমার নামাজকে কেন্দ্র করে মসজিদগুলোতে চার কোটি মানুষ সমবেত হন। ইমাম-মুয়াজ্জিনদেরকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কাজে লাগিয়ে এই বিপুলসংখ্য মানুষের কাছে সহজেই যেকোনো বার্তা পৌছে দেওয়া যায়।

রোববার (১৫ মে) সিলেটের ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমি মিলনায়তনে সাত জেলার ইমামদের নিয়ে ৪৫ দিন ব্যাপি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমি সিলেটের উপপরিচালক শাহ মুহাম্মদ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক (পিআরএল) ফরিদ উদ্দিন আহমদ ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক আবু ছিদ্দিকুর রহমান।

সৈয়দ ফখরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমি সিলেটের সহকারী পরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত সচিব ফারুক আহম্মেদ আরো বলেন, করোনার বিভীষিকাময় সময়ে মানুষ যখন প্রিয়জনদের লাশ ফেলে দৌড়াচ্ছিলো, ইমামরা তখন মানবিক প্রেরণায় সাহসিকতার সাথে লাশ দাফন কাফনের মাধ্যমে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তারা প্রতিনিয়ত সন্ত্রাস, মাদক, যৌতুক ও নিরক্ষরতার বিরুদ্ধে মসজিদের মিম্বর থেকে জনগণকে সচেতন করে তুলছেন।

তিনি বলেন, ইসলামি শিক্ষা ও সংস্কৃতি প্রসারের লক্ষে প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প হিসেবে দেশের উপজেলাগুলো ৫৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণের কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। আগামী মাসেই আরো একশো মডেল মসজিদ উদ্বোধন করা হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট সরকারি আলিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ প্রফেসর মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান বলেন, মসজিদ হচ্ছে আধ্যাত্মিক ও সামাজিক কর্মকান্ডের প্রাণকেন্দ্র। ইমামদেরকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সরকার মসজিদগুলো আলোকরেখা হিসেবে গড়ে তুলছে।

সভাপতির বক্তব্যে ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমি সিলেটের উপপরিচালক শাহ মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, সমাজে মানবিক মূল্যবোধ জাগ্রত করার লক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রশিক্ষিত ইমামরা সারাদেশে মানুষের আত্মাকে জাগ্রত করার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের এ প্রচেষ্টা ধর্মের মৌলিক জ্ঞান বিতরণের পাশাপাশি আর্থসামজিক উন্নয়নে সহায়ক হিসেবে কাজ করছে।

অনুষ্ঠানে সিলেট বিভাগ ছাড়াও ভ্রাহ্মণবাড়িয়া, কিশোরগঞ্জ ও নরসিংদী এই সাত জেলার ১০১ জন প্রশিক্ষণার্থী ইমাম অংশ নেন।