Main Menu

অবৈধ শ্রমিকদের কারণে সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা মালয়েশিয়ায়

Sharing is caring!

অবৈধ পাসপোর্টে যাওয়া অভিবাসীরা করোনা ভাইরাস সংক্রমণের জন্য হুমকি বলে মনে করেন বেশির ভাগ মালয়েশিয়ান। প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৮ জনই এমনটা মনে করেন। এসব শ্রমিক যথাযথ পরীক্ষা ছাড়াই মালয়েশিয়ায় প্রবেশ করেন এবং তাদের কাছ থেকে সংক্রমণ ছড়ায় বলে মনে করেন তারা। আমির রিসার্স নামের একটি প্রতিষ্ঠানের করা জরিপে এমন তথ্য উঠে এসেছে বলে খবর দিয়েছে অনলাইন মালয় মেইল। তারা বলেছে, মানুষের জীবনধারণ, আর্থ সামাজিক ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট নিয়ে জরিপ পরিচালনা করা হয়েছিল। এতে অংশগ্রহণকারীদের চার ভাগের মধ্যে তিন ভাগেরও বেশি বলেছেন, তাদেরকে ব্যয়সংকোচন করে চলতে হচ্ছে। বর্তমানে করোনা ভাইরাসের এপিসেন্টার হলো সারাওয়াক এবং সাবাহ রাজ্য। সেখানে বুমিপুতেরা সম্প্রদায়ের বেশির ভাগ মানুষ এই জরিপে অংশ নিয়েছেন।

এই গবেষণায় অবৈধ অভিবাসীদের দিকে ইঙ্গিত করা হয়েছে। তবে একে অবমাননাকর বলে মন্তব্য করেছেন মানবাধিকার কর্মীরা। বলা হচ্ছে, ডানপন্থি কর্মকর্তারা ভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলা থেকে দৃষ্টি অন্যদিকে সরিয়ে নিতে এমনটা বলে থাকেন। বুমিপুতেরা সাবাহ এবং সারাওয়াকের শতকরা ৯০ ভাগেরও বেশি মানুষ উদ্বিগ্ন। এতে তাদের শতকরা ৯৫ ভাগ কাজ হারাবেন বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। মানুষের উদ্বেগের তৃতীয় ও চতুর্থ অবস্থানে আছে যথাক্রমে অপর্যাপ্ত আয় এবং শিক্ষার গণগত মান কমে যাওয়া।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*