Main Menu

অবসরের ঘোষণা দেন তামিম ইকবাল

গত ২৭ জানুয়ারি টি-২০ ফরম্যাট থেকে ছয় মাসের বিশ্রামের ঘোষণা দেন তামিম ইকবাল। বিশ্রামটা একপ্রকার অবসর ইঙ্গিত করে বলেছিলেন, যদি দরকার পড়ে ফিরবেন। অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপ মাথায় রেখে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কর্তারা তাকে ফেরানোর চেষ্টা করেছেন। তবে ব্যর্থ বিসিবি। দ্রুতই তামিম জানিয়ে দেবেন তার সিদ্ধান্ত।

মঙ্গলবার চট্টগ্রামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজের প্রথমটি চলাকালীন বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস তেমনটাই জানান। এই বোর্ড কর্মকর্তা জানান, তিন-চার মাস ধরেই বোর্ড তার সঙ্গে টি-২০ ফরম্যাটে ফেরার ব্যাপারে যোগাযোগ করছে। কিন্তু তামিম ইতিবাচক কিছু জানায়নি। অফিসিয়ালি তার সিদ্ধান্ত দ্রুতই জানা যাবে।

সংবাদ মাধ্যমকে জালাল ইউনুস বলেন, ‘তামিম আমাদের মোস্ট সিনিয়র ক্রিকেটার। ওর অবস্থান সম্পর্কে ওই সবচেয়ে ভালো বোঝে। তার সঙ্গে আমাদের একাধিক বৈঠক হয়েছে। সেটাও আপনারা জানেন। আপনাদের কাছেও (সংবাদ মাধ্যমে) এক্সক্লুসিভলি তার পরিকল্পনা সম্পর্কে কথা বলেছে। এরপর আমাদের কি আর কিছু বলার থাকে?’

তামিমের ছয় মাসের বিশ্রাম শেষ হবে জুলাই মাসে। ছয় মাসের মধ্যে তামিম তার ফেরা না ফেরার সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিক করবেন বলেও ইঙ্গিত করেছেন বিসিবির এই পরিচালক, ‘ছয় মাস গেলে তার সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিকভাবে আপনারা জানতে পারবেন। সে থাকবে কিনা তার মুখ থেকেই শুনবেন। আমার পক্ষে বলা কঠিন। তবে আমরা চাই, সে খেলুক। তিন মাস ধরে তাকে ফেরানোর চেষ্টাও করেছি।’

টেস্ট ফরম্যাট থেকে অবসর নিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ। হুট করে তিনি সরে যাওয়ায় বিসিবি সভাপতি পাপন, বোর্ড নির্বাচকরা ক্ষুব্ধ হয়েছেন। তবে মেনে নিয়েছেন তার সিদ্ধান্ত। ইচ্ছার ওপর জোর করা কঠিন। তামিমের ছয় মাসের বিশ্রামের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েছে বোর্ড। তিনি অবসরের সিদ্ধান্ত নিলেও বোর্ড তার প্রতি সম্মান জানাবে বলে উল্লেখ করেছেন জালাল ইউনুস।